×

ফুটপাতে বাস করে, ঝরঝরে ইংরেজি বলে তাক লাগালেন ভিখারি, ভাইরাল ভিডিও

জীবনে চলতে গেলে রাস্তাঘাটে এমন অনেক মানুষদের দেখা যায় যারা মানসিক ভারসাম্যহীন।

জীবনে চলতে গেলে রাস্তাঘাটে এমন অনেক মানুষদের দেখা যায় যারা মানসিক ভারসাম্যহীন। ছেঁড়া পোশাক অপরিষ্কার অবস্থায় তাদের দেখা যায়। কিছু মানুষ এদের কিছুটা এড়িয়ে চলেন আবার অনেকে আছেন যাঁরা সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেন তাঁদের দিকে। কিন্তু কথাতেই আছে, “মানুষের পোশাক দেখে, তাঁকে বিচার করতে নেই।” অর্থাৎ কার মধ্যে কি প্রতিভা লুকিয়ে আছে তার সামনে থেকে দেখে বোঝা কখনোই সম্ভব নয়।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় এক চাঞ্চল্যকর ভিডিয়ো ভীষণভাবে ভাইরাল হয়েছে। ভিডিয়োটি আসবার পর নেটিজেনরা অবাক হয়ে গিয়েছেন। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, বারানসীর (Varanashi) অসি ঘাট এলাকার এক দোকানের সামনে একজন মহিলা বসে রয়েছেন। মহিলাটির সঙ্গে অবনীশ কথা বলতে বলতে সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন। মহিলাটির সঙ্গে অবনীশের কথোপকথন চলে ইংরেজিতে। এবং মহিলাটিও সাবলীলভাবে সম্পূর্ণ ইংরেজিতে সমস্ত কথার উত্তর দেন।

ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে অবনীশ ত্রিপাঠী (Abanish Tripathi) নামের ইউজার থেকে। তিনি ভিডিয়োটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করতেই ভীষণভাবে ভাইরাল হয়ে পড়ে। ভিডিওটিতে যে মহিলাটিকে দেখা যাচ্ছে তার নাম স্বাতী (Swati)। মহিলাটি আরও জানান, তিনি আসলে দক্ষিণ ভারতের মানুষ। তিনি এক সন্তানের জন্ম দেন এবং জন্ম দেওয়ার পরই তাঁর শরীরের ডান দিকটি প্যারালাইসড্ হয়ে যায়। তিনি আরও বলেন তিনি কম্পিউটার সাইন্স নিয়ে বিএসসি পাশ করেছেন।

ভিডিয়োটি যিনি পোস্ট করেছেন অর্থাৎ অবনীশ জানান, মহিলাটি মানসিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ। অর্থকষ্টের অভাবে তাঁকে রাস্তায় থাকতে হয়। কম্পিউটারে টাইপিং-এর কাজও তিনি করতে পারেন। ইংরেজিতেও তাঁর ভালো দখল রয়েছে। স্বাতীর একটি ভালো জীবন দরকার। অবনীশ তাঁকে টাকা দিতে গেলে সে টাকা নেয়নি। তার পরিবর্তে অবনীশের কাছে সে কাজ চেয়েছে। ভিডিওটি সামনে আসতেই অনেকেই অনেক রকম মন্তব্য করেছেন। অনেকেই স্বাতীকে সাহায্য করবার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন। ভিডিয়োটি ঝড়ের গতিতে শেয়ার হয়েছে।

Related Articles