×

অবিকল মানুষের মতো স্কুলে গিয়ে পড়াশোনায় করছে ছোট্ট বাঁদর ছানা, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

অবিকল মানুষের মতো স্কুলে গিয়ে পড়াশোনায় করতে দেখা গেলো ছোট্ট বাঁদর ছানাকে।

সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে আমজনতা থেকে সেলিব্রিটি, সকলেরই ব্যক্তিগত জীবনে ঢুকতে বেশি সময় লাগেনা আমাদের। যার মাধ্যমে প্রতিনিয়ত ভাইরাল হচ্ছে বিভিন্ন ধরণের মজার মজার এবং বিরল দৃশ্যের ভিডিও। কিছু কিছু ভিডিও আমাদের নানা দুঃখ-কষ্টকে এক মুহূর্তে ভুলিয়ে দেয়, আবার কিছু কিছু ভিডিও দেখে আমরা শিউরে যাই। আবার কিছু কিছু ভিডিও দেখলে মনে হয়, মনুষ্যত্ব এখনও বেঁচে রয়েছে কোথাও না কোথাও। কিছু কিছু ভিডিও আমাদের অণুপ্রাণিতও করছে বিভিন্ন সময়ে।

আসলে মানুষ সময়ের স্রোতে ভাসমান প্রাণী। সময়ের পরিবর্তন মানুষকেও প্রতিনিয়ত বদলে দিচ্ছে। তবে আজকে এই প্রতিবেদনের আলোচ্য বিষয় একটু ভিন্ন। সমাজের দিকে যদি একটু নিখুঁত দৃষ্টিতে তাকানো যায়, তাহলে উঠে আসবে অনেক মানুষের নানা ভ্যারিয়েন্ট। বর্তমানে সমাজে একাধিক পশুপ্রেমী মানুষ আছে, যারা নিজের থেকেও নিজেদের বাড়ির পোষ্য বা রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো পশুদের বেশি ভালবাসেন।

যখন তখন তাদের খাবার খাওয়াচ্ছেন, আবার রাস্তার কোনও সারমেয় যদি অসুস্থ হয়ে যায় তাহলে তাদের চিকিৎসারও ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন, এর থেকেই বোঝা যায় মনুষ্যত্ব এখনও কোথাও না কোথাও বেঁচে আছে। সম্প্রতি, একটি সুন্দর ভিডিও নেটমাধ্যমে বিশাল ভাইরাল হয়েছে। আচ্ছা মানুষ অনেকেই কুকুর, বিড়াল, খরগোশ, পাখি প্রভৃতি প্রাণীকে বাড়িতে পোষে কিন্তু কখনো ছোট্ট বানরছানাকে কেউ বাড়িতে পুষতে কেউ দেখেছেন কী? হ্যাঁ, এরকমই একটি ভাইরাল ভিডিওর খোঁজ মিলেছে সম্প্রতি। ভিডিওটি দেখলে আপনিও চমকাতে বাধ্য। ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, একটি খুদে পড়ুয়া বাঁদরের ভিডিও।

ভিডিওটিতে দেখা গিয়েছে, একটি বাড়ির বাচ্চারা তৈরি হচ্ছে স্কুল যাবে বলে। আর তাঁদের সঙ্গে নাম লিখিয়েছে বাড়ির ছোট্ট বাঁদরছানাটিও, একেবারে স্কুলের পোশাক
পরে স্কুলের পথে রওনা দিয়েছে সে। আবার সকলের সঙ্গে স্কুটারে বসে সে স্কুলে পৌঁছে গেল। সেখানে দেখা যায় সবার সঙ্গে বাদরছানাটিও পড়াশোনায় ব্যস্ত। কিন্তু পড়াশোনা করার মত উন্নত হয়নি সে! শুধু চতুর্দিকে তাকিয়ে নজর রাখছিল সে। এই অসাধারন ভিডিওটি সম্প্রতি ‘মলি মঙ্কি’ নামের ইউটিউব চ্যানেল থেকে আপলোড করা হয়েছে। যা কিছু সময়ের মধ্যেই ২ হাজার ভিউজ সংখ্যা ছাড়িয়েছে।

Related Articles