×

বাড়ির ভেতরে লুকিয়ে ছিল বিষধর কোবরা সাপ, বের করতে গিয়ে ঘটল মহাবিপত্তি, ভাইরাল ভিডিও

বাড়ির ভেতরে লুকিয়ে থাকা ওই কোবরা সাপটি আরেকটু হলেই একটি ছোট্ট বাচ্চা মেয়েকে কামড়ে দিত।

সোশ্যাল মিডিয়া এমন একটি জায়গা যেখানে কোনো কিছু ভাইরাল হতে বেশি সময় লাগে না। ফলে এর মাধ্যমে জনপ্রিয়তার পাশাপাশি রুজি-রুটির ব্যবস্থা হয়েছে বহু মানুষের। সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিওগুলির মধ্যে অন্যতম হলো সাপের ভিডিও। মূলত সাপকে কমবেশি প্রতিটি মানুষই ভয় পায়। এই প্রাণীটিকে দেখলে যে কারোরই হাড়হিম হয়ে আসে। আর সেই সাপের প্রজাতি যদি হয় কিং কোবরা (King Cobra) তাহলে তো কোনো কথাই নেই।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে সেরকমই একটি লোমহর্ষক ভিডিও। আর যা দেখে বেশ আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে নেটিজেনদের মধ্যে। ভাইরাল ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে একটি ঘরের মধ্যে লুকিয়ে রয়েছে একটি বিশাল আকৃতির কোবরা সাপ। আর স্বাভাবিকভাবেই তাঁকে দেখে বাড়ির লোকেরা ভয়ে জড়সড়ো। আর তাঁকে তাড়াতে ডাকা হয়েছে এক প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত সাপ ধরা ব্যক্তিকে। সেই ব্যক্তি সেখানে এসে তড়িঘড়ি একটি লাঠির সাহায্যে কেরামতি দেখিয়ে সাপটিকে ধরে ফেলে এবং একটি ব্যাগের মধ্যে পুরে দেয়।

বাড়ির ভেতরে লুকিয়ে থাকা ওই কোবরা সাপটি আরেকটু হলেই একটি ছোট্ট বাচ্চা মেয়েকে কামড়ে দিত। কিন্তু ওই ব্যক্তি তৎক্ষণাৎ সেখানে উপস্থিত হওয়ায় সেরকম কিছু হয়নি। ‘মির্জাএমডিআরিফ’ ডাবল একটি ইউটিউব চ্যানেল থেকে এই লোমহর্ষক ভিডিওটি আপলোড করা হয়। যা ওই সাপ ধরা ব্যক্তিটিরই ইউটিউব চ্যানেল। তাঁর ইউটিউব চ্যানেলটি ঘাটলে দেখা যাবে যে সেখানে আরও এ ধরনের অনেক ভিডিও রয়েছে।

প্রসঙ্গত, অনেকেই জানেন না যে কোবরা একটি অত্যন্ত বিষধর প্রজাতির সাপ। এই সাপের বৈজ্ঞানিক নাম ‘নাজা নাজা’। আর ভারতে এই সাপটিকে ‘ইন্ডিয়ান কোবরা’ নামে ডাকা হয়। এই সাপ সাধারণত হলুদ, লালচে, বাদামী ও কালো রঙের হয়। এই প্রজাতির সাপের কামড়ে মানুষের কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট ও শ্বাসকষ্ট হতে পারে। ভিডিওটিতে দেখা যায় সাপটিকে প্রথমে ওই ব্যক্তি বাগে আনতে পারছিল না। কিন্তু বহু চেষ্টার পর সেটিকে ব্যাগের ভেতর ঢোকানো সম্ভব হয়। আর বর্তমানে এই ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে।

Related Articles