×

বাঁশ দিয়ে ইদুর মারার ফাঁদ তৈরি করে তাক লাগালেন এই যুবক, ভাইরাল ভিডিও ঘিরে তোলপাড় নেটদুনিয়া

ইঁদুর দমন পদ্ধতি সঠিক স্থানে, সঠিক সময়ে ও সঠিকভাবে প্রয়োগ করতে হবে।

ঘরে ইঁদুরের বসবাস খুবই সাধারণ একটি বিষয়। তবে ইঁদুর খুবই চতুর ও নীরবে ধ্বংসকারী একটি স্তন্যপায়ী প্রাণী। দেখতে ছোটখাটো হলেও খুবই ক্ষতিকারক একটি প্রাণী ইঁদুর। যে কোনও খাদ্য খেয়ে বা যে কোনও পরিবেশেই মানিয়ে নিতে পারে ইঁদুর। ১৭০০টি ইঁদুর প্রজাতির মধ্যে ২২টিরও বেশি ইঁদুর প্রজাতি ক্ষতিকারক। প্রতিনিয়ত ইঁদুর ফসল থেকে শুরু করে জামা-কাপড়, বই খাতা সবটাই নষ্ট করছে। বাংলাদেশে ইঁদুরের আক্রমণে প্রতিদিন গড়ে ধানের ৫-৭ ভাগ, গমের ৪-১২ ভাগ, আলুর ৫-৭ ভাগ, আনারসের ৬-৯ ভাগ নষ্ট হচ্ছে।

গুদামজাত শস্যের ৩-৫ শতাংশ হচ্ছে। ২০২১ সালের এক গবেষণা মতে, এশিয়ায় ইঁদুর বছরে ১৮ কোটি মানুষের খাবার ধান-চাল খেয়ে নষ্ট করে। যা গড়ে দাঁড়ায় প্রায় ৫০-৫৪ লাখ মানুষের এক বছরের খাবার। শুধু তাই নয়, ইঁদুরের মলমূত্র, লোম খাদ্য দ্রব্যের সঙ্গে মিশে টাইফয়েড, জন্ডিস, চর্মরোগ, প্লেগ ও ক্রিমিরোগসহ ৬০ ধরনের রোগ হতে পারে। বড় সড়ক, বাঁধ, রেললাইনেও গর্ত করে তা ক্ষতিগ্রস্ত করে এই ছোট্ট প্রাণীটি। কাজেই ইঁদুরের ভয়ানক আক্রমণ থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্যে এবং দূষণমুক্ত পরিবেশ গড়ে তোলার জন্যে ইঁদুর নিধন করার সর্বাত্মক প্রচেষ্টা নিতে হবে।

কাঠের গুঁড়া, দরজা, জানালা, ফ্রেম, গুদামের জিনিসে ক্ষতির চিহ্ন দেখে ইঁদুর আসার লক্ষণ বোঝা যায়। এছাড়াও আনারস, নারিকেল, আখ, ঘর বা গুদামে রক্ষিত ধান, চাল, গম রাখার বস্তা কাটা দেখে, ইঁদুরের খাওয়া ধানের তুষ দেখে বোঝা যায় এদের উপস্থিতি। ইঁদুরের কখন আগমন হয়, কী করে বুঝবেন? জেনে নিন!

১. ধানের কুশি স্তর থেকে ধানের থোড় হওয়ার আগে পর্যন্ত ইঁদুরের সংখ্যা কম থাকে। অর্থাৎ আগস্ট থেকে অক্টোবর পর্যন্ত ইঁদুর আসার সম্ভাবনা থাকেনা।

২. গমের থোড় হওয়ার আগে, অর্থাৎ ফেব্রুয়ারি-মার্চ পর্যন্ত ইঁদুর আসার সম্ভাবনা থাকেনা।

৩. সবজি, বাদাম, আলু ফসলের ক্ষেত্রে ফসল লাগানোর সময় এবং ফসল ধরার আগে ইঁদুর আসার সম্ভাবনা থাকেনা।

৪. আখের ক্ষেত্রে চারা রোপণের আগে মাটি ও আইলে দমনের আগে ইঁদুর আসার সম্ভাবনা থাকেনা।

ইঁদুর দমন করা যাবে কী করে: মাত্র একটি পদ্ধতি দ্বারা ইঁদুর দমন করা সম্ভব নয়। ইঁদুর দমন পদ্ধতি সঠিক স্থানে, সঠিক সময়ে ও সঠিকভাবে প্রয়োগ করতে হবে। অরাসায়নিক দমন ব্যবস্থা এবং রাসায়নিক দমন ব্যবস্থার মাধ্যমে ইঁদুর দমন করা সম্ভব।

অরাসায়নিক দমন ব্যবস্থা- ঘরবাড়ি ও ক্ষেতের আশপাশ পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা, গুদামঘর পরিষ্কার রাখা এবং গুদামের দরজার ফাঁক বন্ধ করে দেওয়া।

Related Articles