×

জলের ওপর দিয়ে মোটরবাইক চালিয়ে তাক লাগালেন এই যুবক, ঝড়ের গতিতে ভাইরাল ভিডিও

সিনেমা নয়, ঘোর বাস্তব! যুবকের এই অভিনব কীর্তি সাড়া ফেলে দিয়েছে নেটদুনিয়ায়।

সোশ্যাল মিডিয়া যেমন একদিকে এক একটা নিখুঁত প্রতিভার খোঁজ দিচ্ছে, তেমনি বিজ্ঞানের গুনাগুনের জেরে এবং আধুনিক প্রযুক্তির মেলবন্ধনে এক একটা তুখোড় তুখোড় জিনিসপত্রেরও আবিষ্কার ঘটছে, এবং সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে তা প্রকাশ্যে আসছে চটজলদি। আসলে নানান ধরনের কাজকর্ম বা পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে এবং নিজস্ব বুদ্ধিকাজে লাগিয়ে মানুষ কত নতুন নতুন যন্ত্রপাতির আবিষ্কার করছেন।

যা একবার প্রকাশ্যে এলেই ঝড়ের বেগে ভাইরাল হয়ে যায়। তবে একবারে কোনো সময়েই সফলতা আসে না। কিন্তু সে বিফলতাকে পাশে রেখেই চেষ্টা চালিয়ে যেতে হয়। কারণ চেষ্টা করতে করতেই একদিন সফলতা আপনার দোরগোড়ায় ধরা দেবে। শহর হোক বা গ্রাম ট্যালেন্টের কোনো শেষ নেই। যে কেউ নিখুঁত কিছু তৈরি করে ভাইরাল হয়ে যাচ্ছেন। হ্যাঁ, এবার এমনই একটি গ্রামের যুবক একটি অত্যাধুনিক যানবাহন আবিষ্কার করে খ্যাত হয়ে গেলেন। মানুষের এখন চরম প্রিয় যানবাহনের মধ্যে একটি বাইক।

যার মাধ্যমে যখন তখন এদিকে সেদিকে বেরিয়ে পড়া যায়। তবে বাইক স্থলভাগের যানবাহন। কারণ জলভাগে কখনই এই যানবাহন চালানো যায় না। জলভাগের জন্যে নৌকা বা জাহাজই যথেষ্ট। কিন্তু যদি স্থলভাগের কোনো যানবাহন জলভাগে নামানো যায়, তাহলে কেমন হয়? কী আজব মনে হচ্ছে? হ্যাঁ, সম্প্রতি গ্রামের ওই যুবকটি এমন একটি মোটর বাইক তৈরি করলেন যা দেখে মানুষ হতবাক হয়ে উঠেছেন। আসলে বাইক তৈরি করেন নি তিনি, বাইকের চারদিকে তিনি অভিনব পদ্ধতিতে ঢাকনা বিশিষ্ট বড় বড় এয়ার কন্টেনার বা ড্রাম যুক্ত করে দিয়েছে।

যার ফলে যদি কোনো সময় মোটরবাইকটিকে জলের মধ্যে নামানো যায় তাহলে তা ডুববে না বরং ভেসে থাকবে জলের উপরে। এমনকি গাড়িটিকে যদি স্টার্ট করা যায় তাহলে গাড়ির পেছনের চাকা ঘূর্ণনের ফলে নৌকার মতো বা স্পিড বোটের মতো দ্রুত দৌড়বে। ভিডিওটিতে ঠিক তেমনটাই দেখা যাচ্ছে। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে যে, ওই যুবকটি জলের মধ্যে সেই মোটরবাইকটিকে নামিয়ে স্টার্ট দিয়ে সামনের দিকে দ্রুত গতিতে এগিয়ে নিয়ে গেলেন। গাড়িটির পিছনের চাকার ঘূর্ণনের ফলে বাইকটিকে দেখতে একেবারে স্পিডবোটের মতো দেখাচ্ছে। অবাক করা ভিডিওটি সম্প্রতি ঝড়ের বেগে ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়, যা দেখে মানুষ যুবকটির প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

Related Articles