×

পাতা দিয়েই করুন কাঁঠাল গাছের চাষ, ফলন হবে বাম্পার, শিখে নিন পদ্ধতি

কাঁঠাল পাতা দিয়ে করুন কাঁঠাল গাছ, রইল বিস্তারিত।

বাড়ির বাগান বা ছাদে টবের মধ্যে বিভিন্ন রকমের ফুল, ফল, সবজির চাষ করেন এরকম মানুষ অনেকেই আছেন। তবে বাড়ির যত্নে অনেক সময়েই গাছের ফলন খুব একটা ভালো হয় না। মাঝেমধ্যেই লেবু গাছের ফুল ফুটলেও তার যত্নের অভাবে ঝরে পড়ে যায়। লঙ্কা গাছের ক্ষেত্রেও এই সমস্যা দেখা দেয়, যত্নের অভাবে লঙ্কা গাছের পাতাও হলুদ হয়ে যায়।
আসলে অনেক মানুষই গাছ (Tree) লাগাতে পছন্দ করেন। কিন্তু মাঝে মধ্যেই ব্যস্ততার জন্যে গাছ ব্যবহার করা হয়ে ওঠে না।

তাই অযত্নে গাছ নষ্ট হয়ে যায়। এদিকে বাজার চলতি রাসায়নিক সার ও কীটনাশক প্রয়োগ করে গাছ বেশি নষ্ট হচ্ছে। ফুল (Flower) বা ফুলের গাছ কম-বেশি সকলেই পছন্দ করেন। বাড়িতে ফুল গাছ থাকলেও বাড়ির সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি হয়। আর গরমকালে সাধারণত বাজারে আম, কাঁঠালের ছড়াছড়ি থাকে। আর বাজার থেকে লোভে পড়ে আম-কাঁঠাল এনে বাড়ির ফ্রিজ ভরিয়ে রাখা। এই গন্ধই যেন প্রাণের উচ্ছ্বাস আরও বাড়িয়ে দেয়। নিজেদের খাওয়ার জন্যে দুপুরের পর এই ফলের থেকে ভাল আর কিছু হতে পারেনা।

পাশাপাশি বাড়িতে অতিথিদের এলো তাঁদেরও তেলে ভাজাভুজি না দিয়ে, আম-কাঁঠাল খাওয়ান, দেখবেন তাঁরা আরও প্রসন্ন হবে। যাদের বাড়িতে কাঁঠাল বা আম গাছ আছে তাদের তো পোয়া বারো। কিন্তু জানেন কি, কাঁঠালের পাশাপাশি কাঁঠালের বীজও সমান উপকারী। এই ফলের গন্ধ যেমন বাতাসে ঘুরতে থাকে। তেমনি কাঁঠালে উপস্থিত ফাইটো নিউট্রিয়েন্টস, আলসার, ক্যান্সার, উচ্চ রক্তচাপ এবং বার্ধক্য প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে। তাই আজ আপনাদের কাঁঠাল বীজ নয় বরং একটি কাঁঠাল গাছের পাতা থেকে কিভাবে সম্পূর্ণ গাছ তৈরি করতে পারবেন সেই পদ্ধতি বিশ্লেষণ করব কয়েকটি ধাপ অবলম্বনে।

১) প্রথমে কয়েকটি কাঁঠাল পাতা নিয়ে ধুয়ে ছোট মাপের একটি পাত্র কিংবা টবে ভালো করে ভরে দিন বালি।

২) এরপর বালির মধ্যে পাতার বৃন্তটি পুঁতে ভালো করে জল দিয়ে বালি সম্পূর্ণ ভরে দিন।

৩) এবার ঠিক একই ভাবে জল দিয়ে যান প্রায় ৪০ দিন। তারপরেই দেখবেন পাতার উপর গাছের বৃন্তটি থেকে গজিয়েছে ছোট ছোট শিকড়।

৪) তবে সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি ছায়া জায়গায় রাখতে হবে। নতুন জন্মানো পাতাগুলি সূর্যের আলো লাগালে চলবে না।

৫) এবার সেই টব থেকে তুলে নিয়ে সেই পাতা গুলি নির্দিষ্ট কোনো স্থানে পুঁতে দিন।

৬) তারপরে কাঁঠাল গাছ পরিচর্যা করলেই দেখবেন গাছ ভরে উঠবে সুন্দর সবুজ কাঁঠালে।

Related Articles