×

চিকেন ও ডিম দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের ইউনিক তরকারি, একবার খেলে প্রেমে পড়ে যাবেন

গরম ভাত বা রুটির সাথে খেতে খুব সহজে বানিয়ে ফেলুন ডিম ও চিকেনের অসাধারণ রেসিপি।

ছুটির দিনে বাঙালিদের খাদ্য তালিকা রাজকীয় করে তুলতে চিকেন-ই কাফি! কিন্তু, একই ধরনের চিকেনের ঝোল খেতে কি আর ভালো লাগে? তাই আজ তৈরি করে নিন চিকেনের ইউনিক এক রেসিপিটি। যা একঘেয়েমি চিকেনের স্বাদ বদলে এনে দেয় নতুন স্বাদ। চলুন তাহলে দেরি কিসের, ঝটপট জেনে নিন ইউনিক স্টাইলে চিকেনের রেসিপিটি তৈরির প্রণালী।

উপকরণ :
চিকেন
পেঁয়াজ বাটা
আদা বাটা
রসুন বাটা
কাঁচা লঙ্কা বাটা
টমেটো কুচি
টক দই
ডিম
বেসন
সোয়া সস
হলুদ গুঁড়ো
লাল লঙ্কার গুঁড়ো
ধনে গুঁড়ো
জিরে গুঁড়ো
গোটা জিরে
শুকনো লঙ্কা
কাজুবাদাম
দারুচিনি
এলাচ
লবঙ্গ
পোস্ত
সরষের তেল

প্রণালী :
প্রথমে, পরিমানমতো চিকেনের মধ্যে ১ টি ফেটানো ডিম, ১ চামচ বেসন, ১/২ চামচ আদা, রসুন ও কাঁচা লঙ্কা বাটা, ১/৪ চা চামচ শুকনো লঙ্কার গুঁড়ো, পরিমান মত হলুদ গুঁড়ো, ১ চামচ সরষের তেল, পরিমানমতো লবন, ১/২ চামচ সোয়া সস দিয়ে সমস্ত উপকরন বেশ ভালোভাবে মিশিয়ে নিন। এবার চিকেনের এই মিশ্রণটি ১০ মিনিটের জন্য ম্যারিনেটর জন্য রেখে দিন।

এবার একটি ফ্রাইং প্যানে ১ চামচ গোটা জিরে, ২ টি শুকনো লঙ্কা, ২ টি কাজুবাদাম, ১ টুকরো দারুচিনি, ৪-৫ টি লবঙ্গ, ২ টি এলাচ দিয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে ভেজে নিন। এখন এই উপকরনগুলি ভাজা হয়ে এলে গ্যাস অফ করে ১ চামচ পোস্ত এর মধ্যে দিয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে নিন। এরপর এই ড্রাই রোস্ট করা মশলাটি ঠান্ডা করে এর মধ্যে পরিমাণ মতো জল মিশিয়ে পেস্ট করে নিন।

এবার কড়াইয়ে পরিমাণমতো সরষের তেল গরম করে ম্যারিনেট করে রাখা চিকেন গুলি ভেজে তুলে নিন। তারপর ওই একই তেলের মধ্যে আরো ১ চামচ তেল গরম করে ২ টি পেঁয়াজ বাটা দিয়ে লালচে রঙ ধরিয়ে ভেজে নিন। এখন এর মধ্যে ১ চামচ আদা, রসুন ও কাঁচা লঙ্কার পেস্ট, পরিমান মত হলুদ, শুকনো লঙ্কা, জিরে ও ধনে গুঁড়ো, ২ চামচ ফেটানো টক দই দিয়ে সমস্ত উপকরণ ভালোভাবে মিশিয়ে মশলা কষিয়ে নিন। কষানো মশলা থেকে তেল ছেড়ে এলে এরমধ্যে স্বাদমতো লবণ, ১ টি টমেটো কুচি মিশিয়ে ভেজে রাখা চিকেনের টুকরোগুলি দিয়ে দিন।

অবশেষে একটি ঢাকনার সাহায্যে মিনিট পাঁচেক ঢেকে রান্না করে ওপর থেকে তৈরি করে রাখা ভাজা মশলা বাটা দিয়ে সামান্য নাড়াচাড়া করে নামিয়ে নিন। ব্যাস তৈরি ভিন্ন স্বাদের চিকেনের এই নতুন রেসিপিটি।

তাহলে দেরি না করে আজই দুপুরের মেনুতে বানিয়ে নিন এই রেসিপি এবং মধ্যাহ্নের ভোজনকে করে তুলুন রাজকীয়।

Related Articles