×

পদ্মের ডাটা দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের এই রেসিপি, হাত চাটবে আট থেকে আশি

পদ্মের ডাটা দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের এই রেসিপি, শিখে নিন পদ্ধতি।

বাংলায় একে পদ্মের ডাঁটা বললেও কাশ্মীরের স্থানীয়রা বলে থাকেন ‘নদরু’। এছাড়াও পদ্মের কান্ডকে গোটা ভারতে ‘কমল ককড়ি’ বলেও অনেকে চেনেন। কাশ্মীরের একটি অত্যন্ত জনপ্রিয় পর্যটকস্থল হলো ডাল লেক ও মনসার লেক। কোথায় আছে কাশ্মীর ভ্রমণ এই দুটি জায়গা ছাড়া অসম্পূর্ণ। আর এই দুটো জায়গাতেই ফোটে পদ্মফুল। আর সেই পদ্মফুলের ডাটা দিয়ে তৈরি হয় নদরু ইয়াখনি নামক এক কাশ্মীরি পদ।

প্রতিটি বাড়ির গৃহিনীরাই সর্বদা চিন্তিত থাকেন নিত্যদিনের রান্না নিয়ে। প্রতিদিন একঘেয়ে শাকসবজি দিয়ে কি নতুন রান্না করা যায় তা নিয়ে চিন্তিত থাকেন বাড়ির মহিলারা। যদিও শীতকালে বাজারে বিভিন্ন ধরনের শাকসবজির আনাগোনা থাকে কিন্তু তা সত্ত্বেও ঘুরিয়ে ফিরিয়ে একই ধরনের সবজি খেতে খেতে বিরক্ত হয়ে যান অনেকে। ফলে অনেকেই খোঁজেন নিত্যনতুন পদের রেসিপি। তাই আর একঘেয়ে শাকসবজি খেতে খেতে বিরক্ত না হয়ে বানিয়ে ফেলুন এই কাশ্মীরি রেসিপিটি।

‘নদরু ইয়াখনি’ তৈরি করার জন্য পদ্মের কান্ডগুলিকে প্রথমে ভালোমতো কেটে দিতে হবে। এবার ১ কাপ কাটা পদ্মের ডাটা, ৪ টে কাঁচালঙ্কা, ২ টো কালো মরিচ, ২ টো এলাচ, ৪ টি লবঙ্গ, সামান্য পরিমাণ মৌরি ও সা জিরে, আধ ইঞ্চি মাপের দারচিনি নিয়ে নিতে হবে। তারপর পদ্মের ডাটাগুলির ভালোমতো খোসা ছাড়িয়ে নিতে হবে। মিনিট কুড়ি ঈষদুষ্ণ জলে ভিজিয়ে পদ্মডাটাগুলি থেকে নোংরা বের করে নিতে হবে। তারপর একটি কুকারে পদ্মের ডাটাগুলি সহ, ঘি, লবঙ্গ, এলাচ, শা জিরে, দারচিনি ও মৌরি ও আড়াই কাপ জল দিয়ে পাঁচ থেকে ছয়টা সিটি দিয়ে নিতে হবে। এবার একটি পাত্রে দুধ আর ময়দা মিশিয়ে তা কুকারে ঢেলে দিতে হবে।

এর কিছুক্ষণ পর একটি পাত্রে নুন, হলুদ, আদা, এলাচ গুঁড়ো ও আধ চামচ মৌরি মিশিয়ে গুলে নিয়ে তা তরকারিতে মিনিট ২০ রান্না করে নিতে হবে। তারপর তার মধ্যে ঘি ও হিং দিয়ে দিতে হবে। এবার তাতে সামান্য জিরে গুঁড়ো, কাশ্মীরি লাল লঙ্কার গুঁড়ো ও ধনেপাতা দিয়ে নামিয়ে নিলেই তৈরি সুস্বাদু স্বাদের কাশ্মীরি ‘নদরু ইয়াখনি’।

Related Articles