×

ডিম ও ফুলকপি দিয়ে বানিয়ে ফেলুন দুর্দান্ত স্বাদের এই তরকারি, বাচ্চা থেকে বুড়ো চেয়ে চেয়ে খাবে

ফুলকপি ও ডিম দিয়ে খুব সহজে বাড়িতে বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু স্বাদের এই রেসিপি।

শীতকাল মানেই বাজারে ফুলকপির আনাগোনা। শীতকালীন এই সবজিটি ইতিমধ্যে প্রতিটি বাড়িতেই পৌঁছে গিয়েছে। আর ফুলকপি দিয়ে বিভিন্ন পদের রান্না হয়ে থাকে। তাই আজ আপনাদের জন্য রইল এমন একটি সুস্বাদু ফুলকপির রেসিপি সম্পর্কে যা একবার পাতে পড়লে পেটে দুহাতা ভাত বেশি যাবে। ফুলকপি আর ডিমের এই কষা একবার খেলে বারবার খেতে মন চাইবে সকলের। আসুন তবে জেনে নিন ফুলকপি আর ডিমের কষার এই রেসিপিটি সম্পর্কে-

উপকরণ-
১. ফুলকপি
২. ডিম
৩. জিরে গুঁড়ো
৪. হলুদ গুঁড়ো
৫. নুন
৬. চিনি
৭. গ্রেট করা আদা ও রসুন
৮. তেল
৯. ধনে গুঁড়ো
১০. লঙ্কা গুঁড়ো
১১. গোটা জিরে
১২. পেঁয়াজ
১৩. ধনেপাতা কুচি
১৪. কাঁচা লঙ্কা
১৫. টমেটো

প্রণালী-

প্রথমে ফুলকপি টুকরো করে কেটে নিয়ে গ্ৰেট করে নিতে হবে। এবার তাতে যোগ করতে হবে ডিম। তারপর তাতে একে একে জিরে গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কাগুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, চিনি ও স্বাদমতো নুন দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে।

এরপর একটি থালায় তেল ব্রাশ করে নিয়ে ফুলকপির মিশ্রণটি থালায় ঢেলে দিতে হবে। তারপর একটি কড়াইতে গরম জল রেখে তার ওপর থালাটি বসিয়ে ঢাকা দিয়ে মিনিট দশেক ভাপিয়ে নিতে হবে। ১০ মিনিট পর ফুলকপির মিশ্রণটি থালা থেকে তুলে নিয়ে পছন্দসই আকারে কেটে নিতে হবে। এবার একটি কড়াইতে তেল গরম করে টুকরো গুলি ভেজে নিতে হবে।

তারপর কড়াইতে তেল গরম করে তাতে ১/২ চামচ গোটা জিরে ফোড়ন দিয়ে তার মধ্যে পেঁয়াজকুচি দিয়ে দিতে হবে। পেঁয়াজ ভাজা হয়ে গেলে তাতে লঙ্কা কুচি ও দু চামচ গ্রেট করা আদা ও রসুন দিয়ে দিতে হবে। এরপর মসলার কাঁচা গন্ধ বেরিয়ে গেলে তাতে টমেটো বাটা ঢেলে দিতে হবে।

এবার কিছুক্ষণ মসলা কষিয়ে তাতে ধনে গুঁড়ো, হলুদ গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো, গরম মসলা গুঁড়ো, সামান্য চিনি ও স্বাদমতো নুন দিয়ে ভালোমতো মিশিয়ে নিতে হবে। এরপর মসলা থেকে তেল ছাড়লে তাতে সামান্য জল দিয়ে ঝোল ফুটিয়ে দিতে হবে।

ঝোল ফুটে গেলে তাতে আগে থেকে ভেজে রাখা ফুলকপি ও ডিমের ভাজা টুকরো গুলি দিয়ে দিতে হবে। ওপর থেকে ধনেপাতা কুচি ছড়িয়ে কিছুক্ষণ ঢেকে রান্না করে নিলেই তৈরি সুস্বাদু ডিম ফুলকপির কষা।

Related Articles