×

এইভাবে পালং শাকের ঘন্ট বানালে স্বাদ হবে দুর্দান্ত, গরম ভাতের সাথে জাস্ট জমে যাবে

গরম গরম ভাতের সঙ্গে খেতে খুব সহজে বানিয়ে ফেলুন সুস্বাদু 'পালং শাকের ঘন্ট’।

পশ্চিমবঙ্গে শীত আসন্ন। বিশেষ করে শীতকালে বাজারে যে সমস্ত সব্জি পাওয়া যায়, তা বাকি সময়ে পাওয়া যায় না। আর শীতকাল মানেই বাজারে ফুলকপি, বাধাকপি, মটরশুঁটি, গাজর, মুলো, পালংশাক ইত্যাদি সব্জির চাহিদা আকাশছোঁয়া। যা দিয়ে বাড়িতে তৈরি করা যায় এক একটি লোভনীয় স্বাদের রেসিপি, যা হার মানায় মাংস, মাছের বিভিন্ন রেসিপিকে।
শীতকালে সবজির মধ্যে পালং শাক অন্যতম জনপ্রিয় শাক। যাতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও মিনারেল, অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা ত্বক ও চুলের যত্নে বেশ উপকারী। আজকের এই প্রতিবেদনে জানাবো চটজলদি ‘পালং শাকের ঘন্ট’ বানিয়ে নেওয়ার প্রণালী।

উপকরণ

১ পালং শাক
২ কুচো চিংড়ি মাছ
৩ হলুদ গুঁড়ো
৪ স্বাদমতো নুন
৫ কচু, বেগুন, সিম ও আলু
৬ বড়ি
৭ তেজপাতা
৮ শুকনো লঙ্কা
৯ পাঁচফোড়ন
১০ চেরা কাঁচালঙ্কা
১১ আদা জিরে বাটা
১২ পেঁয়াজ কুচি
১৩ সরষের তেল

প্রণালী

প্রথমে পালং শাক রান্নার জন্য কচু, বেগুন, সিম ও আলু ভালো করে ধুয়ে ছোট ছোট টুকরো করে নিতে হবে। এরপর চিংড়ি মাছ গুলি ভালো করে ধুয়ে ভেজে নিতে হবে।

এরপর কড়াইতে তেল গরম করে ছোট বড়ি ভালো করে ভেজে তুলে নিতে হবে। এরপর ওই তেলের মধ্যেই সামান্য হলুদ দিয়ে সিম ভেজে নিতে হবে।

এরপর ওই তেলের মধ্যেই তেজপাতা, শুকনো লঙ্কা ও পাঁচফোড়ন দিয়ে নাড়াচাড়া করে কচু, আলু, বেগুনের টুকরো, চেরা কাঁচালঙ্কা ও পেঁয়াজ কুচি ভালো করে ভেজে নিতে হবে। এরপর আদা ও জিরা বাটা, জল, হলুদ গুঁড়ো দিয়ে কেটে রাখা পালং শাক ও স্বাদমতো নুন দিয়ে নেড়েচেড়ে নিতে হবে।

এরপর ঢাকনা খুলে ভেজে রাখা সিম, গুঁড়ো করে নেওয়া বড়ি ও ভাজা চিংড়ি মাছ নেড়ে চেড়ে ১০ মিনিট ঢেকে রান্না করে নিলেই তৈরি অভিনব স্বাদের পালং শাকের ঘন্ট।

Related Articles