×

মাত্র ৪১৭ টাকা বিনিয়োগ করেই কোটিপতি হওয়ার সুযোগ! মধ্যবিত্তদের জন্য দুর্দান্ত স্কিম নিয়ে এলো পোস্ট অফিস

পোস্ট অফিসের দৌলতে কোটিপতি হতে হলে আজই করুন এই কাজ।

মোটামুটি সব মধ্যবিত্তরাই কম বিনিয়োগে উচ্চ হারে রিটার্ন পেতে আগ্রহী। তবে শেয়ার বাজারে ঝুঁকি নিতে অনিচ্ছুক অনেকেই। এই আবহে অনেকেই ভরসা রাখছেন পোস্ট অফিসের ওপর। তাই পোস্ট অফিসের দৌলতে কোটিপতি হতে হলে জেনে নিন, পোস্ট অফিসের পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড অ্যাকাউন্টের বিষয়ে খুঁটিনাটি।

১। পোস্ট অফিসের পিপিএফ অ্যাকাউন্ট স্কিমটি বরাবরই সুরক্ষার পাশাপাশি ভালো হারে রিটার্ন দিতে সক্ষম। এই নিয়ে একেবারে নিশ্চিন্তে থাকুন, আমানতকারী যেই সুদের হারে আমানত শুরু করবেন, পর্বর্তীতে মেয়াদপূর্তির সময় সেই একই হারে সুদ পাওয়া যাবে।

২। তবে পোস্ট অফিসের পিপিএফ স্কিমে জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট খুলে পারবেন না। অপ্রাপ্তবয়স্করা তাঁদের নিজেদের নামেই পিপিএফ অ্যাকাউন্ট খুলতে পারবেন। তবে
কোনও প্রবাসী ভারতীয় এই অ্যাকাউন্টের সুবিধা লাভ করতে পারবেন না।

৩। যদি এই অ্যাকাউন্টে দৈনিক ৪১৭ টাকা করে ২৫ বছরে জমানো যায়, তাহলে মেয়াদপূর্তিতে কোটিপতি হওয়া সহজ। এই স্কিমটির আসল মেয়াদ ১৫ বছর। তবে পাঁচ বছর করে এই স্কিমের মেয়াদ বাড়ানো যায়। এতে ৭.১ শতাংশ হারে বর্তমানে সুদ দেওয়া হচ্ছে।

৪। আপনি যদি প্রতি মাসে ১২,৫০০ টাকা করে বিনিয়োগ করতে পারেন, তাহলে ১৫ বছরে আপনার মোট গচ্ছিত অর্থ হবে ২২.৫ লাখ টাকা। এই গচ্ছিত অর্থের ওপর আবার ৭.১ শতাংশ চক্রবৃদ্ধি সুদ দেওয়া হবে। অর্থাৎ, ১৫ বছর পর আপনার অ্যাকাউন্টে সুদ হবে ১৮.১৮ লক্ষ টাকা। অর্থাৎ, ১৫ বছর পর আমনার অ্যাকাউন্টে মোট টাকা থাকবে ৪০.৬৮ লক্ষ।

৫। আপনি যদি আরও পাঁচ বছর পরপর পিপিএফ অ্যাকাউন্টের মেয়াদ বৃদ্ধি করতে পারেন, তাহলে আপনার অ্যাকাউন্টে মোট ১.০৩ কোটি টাকা থাকবে।

Related Articles