×

বলিউডে পা রেখেই ১০০ বারেরও বেশি অন্তঃসত্ত্বা বিদ্যা বালান! গোপন তথ্য ফাঁস করলেন অভিনেত্রী

আজ বলিউড ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিদ্যা বালন (Vidya Balan)।

একসময় নিজের চেহারা নিয়ে শুনতে হয়েছিল অনেক কটূক্তি, যা তাঁর আত্মবিশ্বাস ভাঙ্গার পর্যায়ে নিয়ে যায়, তাও নিজেকে হারতে দেননি তিনি, নিজের আত্মবিশ্বাসকে ফিরিয়ে আনতে সবরকম প্রতিকূলতাকে জয় করে আজ তিনি বলিউডের মতো প্রতিষ্ঠানে সুপ্রতিষ্ঠিত। কোনও সময়ে তিনি ডার্টি পিকচারের সিল্ক চরিত্রে, কোনও সময়ে তিনি কিসমাত কানেকশনে অভিনেতা শহিদ কাপুরের সঙ্গে প্রেমে জড়িয়েছেন, আবার কোনও সময়ে রাজনর্তকীর বেশে পরিণীতা হয়েছেন। বলিউডে পা রাখতে তাঁকে সহ্য করতে হয়েছে অনেক কিছু। কিন্তু হাল ছাড়তে তিনি মোটেও রাজি নন, তাই তো তিনি আজ বলিউড ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেত্রী বিদ্যা বালন (Vidya Balan)।

বিদ্যা মানেই নারী শক্তির এক উজ্জ্বল উদাহরণ। বিদ্যা সর্বদাই মনে করেন সুস্থ থাকতে হলে তাঁকে তাঁর এই ফিগারটাই যথেষ্ট, অন্যের মতো স্লিম হওয়ার জন্যে নিজেকে কষ্ট দেওয়ার একেবারেই পক্ষপাতী নন তিনি। তাঁর কথায়, মোটা ফিগার মানেই সমালোচনার কারণ। একটি সাক্ষাৎকারে বিদ্যা বলেছিলেন তাঁর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার খবর। অর্থাৎ বিদ্যার বেলি ফ্যাট সবসময়ই সবার কাছে মনে করাত যে তিনি অন্তঃসত্ত্বা। পাশ থেকে ছবি নিলেই তাঁর পেট অনেক বড় দেখাতো। আর তখনই সব ছড়িয়ে পড়ত তিনি অন্তঃসত্ত্বা।

সেলিব্রিটিদের খুঁটিনাটি সব তথ্য একেবারে ঝড়ের বেগে ভাইরাল হয়ে যায়। এই প্রসঙ্গে অভিনেত্রী একবার মজার ছলে এও জানিয়েছিলেন যে, গান্ধারীর 100 সন্তানের মা হয়েছিলেন। কিন্তু তাঁর এই বেলি ফ্যাটের জন্যে তিনি গান্ধারিকেও ছাপিয়ে গিয়েছে। বডি শেমিং নিয়ে এরকম ট্রোল হলেও বিদ্যা কখনই বিন্দুমাত্র কর্ণপাত করেননি। তার কথায় তিনি সুস্থ সেটুকুই যথেষ্ট। এমনকি তিনি এই কারণে বিন্দুমাত্র বিচলিতও হননি। ‘গুরু’, বেবি’ এবং ‘কিসমত কানেকশন’ এর মতন ছবিতে তিনি নায়িকার চরিত্রে কাজ করেন। তবে কিসমত কানেকশন ছবির সেটের বাইরেও তাঁকে ভারী, মোটা চেহারা ও ফ্যাশন নিয়ে অনেক কটূক্তি করা হয়েছিল। বিদ্যা তাঁর সব ইমেজ ভেঙে দিয়ে ‘দ্য ডার্টি পিকচার’ (The Dirty Picture) ছবিতে অভিনয়ের জন্য বেশি জনপ্রিয় হয়ে যান।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Vidya Balan (@balanvidya)

সিল্ক চরিত্রে অভিনয় করে তিনি মুগ্ধ করেন সকল দর্শকদের। বক্স অফিসে ব্লকবাস্টার এই ছবির জন্য তিনি সেরা অভিনেত্রীর জাতীয় পুরস্কারও পেয়েছিলেন। সাফল্যের শিখরে ওঠার আগেই পরিচালক করণ জোহারের পার্টিতে দেখেই বিদ্যাকে পছন্দ করে নেন প্রযোজক সিদ্ধার্থ রায় কপূর (Siddharth Roy Kapoor)। মাত্র কয়েকদিনের প্রেমের সম্পর্কে বিদ্যা রাজি হয়ে যার সিদ্ধার্থ রায় কাপূরের তৃতীয় স্ত্রী হওয়ার জন্য। প্রায় আট বছরের অধিক গিয়েছে বিদ্যা ও সিদ্ধার্থের দাম্পত্য জীবন। সোশ্যাল মিডিয়াতেও তিনি খুব সক্রিয়।

Related Articles