×

৪০টা সিনেমায় একসাথে কাজ করেও প্রসেনজিৎ প্রেমের প্রস্তাব দেননি, আক্ষেপ রচনার

নব্বই দশকের বাংলা ছবির অন্যতম জনপ্রিয় হিট জুটি আর কেউ নন হলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (Prosenjit Chatterjee) ও রচনা বন্দ্যোপাধ্যায় (Rachana Banerjee)। সেই সময় একসঙ্গে একের পর এক সুপার হিট ছবি বাঙালিদের উপহার হিসেবে দিয়েছেন তারা। আর সেই সাথে তাদের রসায়ন-ও ছিল নজরকাড়া। তবে, প্রসেনজিৎ যে শুধুমাত্র রচনা ব্যানার্জীর কো স্টার ছিলেন এমনটাই নয়, ছিলেন একজন কাছের বন্ধু। কিন্তু, সারা জীবন বন্ধুত্বের গন্ডিতেই কেন আঁটকে রইলেন তারাঁ? প্রসেনজিৎ এর প্রেমিকা হতে না পারায় এতদিনে আক্ষেপ করলেন রচনা!

বর্তমানে কোনো অভিনয় নয় বরং সঞ্চালিকা হিসেবে ‘দিদি নাম্বার ওয়ানে’ (Didi No 1) নিজের নাম পাকাপোক্ত করে নিয়েছেন রচনা। আর সেই মঞ্চে কিছুদিন আগেই হাজির হয়েছিলেন প্রসেনজিৎ। সেই বিশেষ পর্বে নিজের বাবার প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলেছিলেন রচনা। কেননা, কয়েক মাস আগেই তিনি পিতৃহারা হয়েছেন। তবে তার চোখের জল দেখে সেই সময় তাকে সামলেছিলেন প্রসেনজিৎ।

প্রসঙ্গত, কয়েক বছর আগে শাশ্বত চট্টোপাধ্যায় (Saswata Chatterjee) সঞ্চালিত টক শো ‘অপুর সংসারে’ উপস্থিত হয়েছিলেন রচনা ব্যানার্জি। আর সেখানেই তিনি জানিয়েছেন- ‘প্রসেনজিৎ এর সাথে প্রায় ৩৫-৪০ টি ছবিতে কাজ করেছি আমি। তারপরও একবারও মনে হলনা রাচনা ব্যানার্জির সাথে একটু প্রেম করা যেতে পারে? প্রেমিক মানুষ তো, এটা মনে হয়নি। এটা আমার প্রশ্ন। রচনাকে দেখতে ও সুন্দরী। কখনো মনে হয়নি একটু হাত ধরে ঘোরা যায়, একটু প্রেম করা যায়। অথচ আমরা নাকি ৩৫ টা ছবির নায়ক নায়িকা।’

বলতে গেলে এমন মন্তব্য শুনে ঠিক আপনার মতই অবাক হয়ে গিয়েছিলেন শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়। এমনকি সেই শো-তে একটি খেলার অংশ ছিল যেখানে রচনা ব্যানার্জি বুম্বাদা অর্থাৎ প্রসেনজিতের সম্পর্কে বলেছেন-‘ এই ইন্ডাস্ট্রির শিয়াল হল বুম্বাদা। শিয়ালের বুদ্ধিমত্তার সঙ্গে প্রসেনজিতের তুলনা করা যায়। ওর মত বুদ্ধিমান টলিউডে কজন আছে? কোথায় কিভাবে চলতে হয় তিনি খুব ভালভাবেই জানেন।’ তবে কিছুক্ষণের মধ্যেই স্পষ্ট হয়ে যায় বুম্বাদার সঙ্গে প্রেম করবার কথাটি তিনি মজার ছলেই বলেছিলেন।

Related Articles

Back to top button