×

Aindrila Sharma: সমস্ত লড়াই শেষ, না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা

সব লড়াই শেষ করে না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma)।

ঘটলো না আর মিরাকেল, সব লড়াই শেষ করে না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা (Aindrila Sharma)। পরপর দুবার মারণরোগ ক্যান্সার থাবা বসিয়েছিল শরীরে। দুবারই ক্যান্সারকে হারিয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছিলেন অভিনেত্রী। কিন্তু শেষমেষ ব্রেন স্ট্রোক ও হার্ট অ্যাটাকের ছোবলে পরে বিপুল লড়াই করার পরেও আর ঘরে ফেরা হলো না অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মার। মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার হওয়ার পর তাঁর পরিজনদের পাশাপাশি তাঁর অনুরাগীদের মনে আশা জন্মেছিল যে হয়তো এবার চেতনা ফিরে আসবে। কিন্তু গতকালই হার্ট অ্যাটাক সেইসব আশা শেষ করে দেয়।

চিকিৎসকদের হাজার চেষ্টা করার ফলেও কোনোভাবেই কোমা থেকে ফেরানো গেল না অভিনেত্রীকে। তারাদের দেশে চলে গেলেন বাংলা টেলিভিশন জগতের সকলের প্রিয় অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা। ‘কালার্স বাংলায়’ সম্প্রচারিত ‘ঝুমুর’ ধারাবাহিকের মাধ্যমে প্রথম অভিনয় জগতে পা রেখেছিলেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা। এরপর স্টার জলসায় সম্প্রচারিত ‘জীবন জ্যোতি’ ধারাবাহিকে মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায় তাঁকে। এই ধারাবাহিক থেকে অভিনেত্রী ব্যাপক পরিচিতি লাভ করেন দর্শকমহলে।

এরপর ‘সান বাংলায়’ সম্প্রচারিত ‘জিয়ন কাঠি’ ধারাবাহিকে তুলি নামক একটি চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যায় তাঁকে। এই ধারাবাহিকে অভিনয় করার সময়ই শুটিং সেটে হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পরেন অভিনেত্রী। তৎক্ষণাৎ তাকে ভর্তি করানো হয় হাসপাতালে। এরপর পরপর অনেকগুলো কেমো থেরাপি সহ্য করে ক্যান্সারকে হারিয়ে আবার ধীরে ধীরে স্বাভাবিক ছন্দে ফেরেন অভিনেত্রী। সুস্থ হয়ে ফেরার পর তাঁর ও সব্যসাচীর বেশ সুন্দর সময় কাটছিল। কিন্তু হঠাৎই ব্রেন স্ট্রোক সমস্ত কিছু তছনছ করে দিল। গত ১ লা নভেম্বরের রাতে হঠাৎ ব্রেন স্ট্রোক করেন ঐন্দ্রিলা। এরপর তড়িঘড়ি অভিনেত্রীকে ভর্তি করানো হয় হাওড়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে। সেখানে রাতেই চলে অস্ত্রোপচার। তারপর থেকে বহুদিন ভেন্টিলেশনে ছিলেন অভিনেত্রী। কিন্তু শনিবার রাতে অন্তত ১০ বার হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। ফলে এখানেই লড়াই থেমে যায় অভিনেত্রীর। শেষমেষ আজ না ফেরার দেশে পাড়ি দিলেন সকলের প্রিয় ঐন্দ্রিলা।

গোটা সময়ে তাঁর ছায়াসঙ্গী হিসেবে সবসময় পাশে ছিল অভিনেতা সব্যসাচী চৌধুরী। এই কদিন না খেয়ে হাসপাতালে সারাদিন পরেছিলেন তিনি। এমনকি তিনি ফেসবুকের মাধ্যমে সকলকে আশ্বস্ত করেছিলেন যে, অভিনেত্রীকে নিয়ে তিনি বাড়ি ফিরে যাবেন, এর অন্যথা কিছু হবে না। তা আর হলো না। তরুণ অভিনেত্রীর প্রয়াণে শোকস্তব্ধ গোটা টলিউড। সকলের প্রিয় অভিনেত্রীর এভাবে চলে যাওয়াটা কেউই মেনে নিতে পারছেন না।

Related Articles